ওপেন নিউজ
  • | |
  • cnbangladesh.com
    opennews.com.bd
    opennews.com.bd
    opennews.com.bd
    opennews.com.bd
opennews.com.bd

সাক্ষাৎকার

প্রতিশোধ সাথী আক্তারের


Date : 09-01-16
Time : 1472744761

opennews.com.bd

ওপেননিউজ #  চাঁদপুরের সাথী আক্তার, অষ্টম শ্রেণির ছাত্রী।  কোমলমতি এই কিশোরীটি কয়েক দিন আগে গলায় ওড়না পেঁচাইয়া আত্মহত্যা করিয়াছে। অপমানের লজ্জা হইতে চিরতরে মুক্তি পাইতে এই পথ বাছিয়া নিয়াছে অভিমানী মেয়েটি। এই পথে যেন বা সে নিয়াছে তাহার অপমানের প্রতিশোধ। পত্রিকান্তরে প্রকাশ, সাথী চাঁদপুর সদর উপজেলার বাগাদী গণি উচ্চবিদ্যালয়ের একজন শিক্ষার্থী। গত রবিবার সে স্কুলের মাসিক বেতন ও জেএসসি মডেল টেস্ট বাবদ ৪০০ টাকার মধ্যে পরিশোধ করিয়াছে ৩২০ টাকা। বকেয়া মাত্র ৮০ টাকার জন্য বিদ্যালয়ের সহকারী প্রধান শিক্ষক তাহাকেসহ কয়েকজন শিক্ষার্থীর কপালে ইট রাখিয়া তাহাদের প্রচণ্ড রৌদ্রের মধ্যে এক ঘণ্টা দাঁড় করাইয়া রাখেন। এই অপমান সহ্য করিতে না পারিয়া পরদিন আত্মহত্যা করে এই মেয়েটি। আত্মহননের মধ্য দিয়া সাথী আক্তার চোখে আঙ্গুল দিয়া দেখাইয়া দিল যে, আমাদের শিক্ষা ব্যবস্থায় এখনো কী পরিস্থিতিতে বিরাজমান। কোনো শিক্ষার্থীকে বেতন-ফি না দেওয়ার অভিযোগে এইভাবে শাস্তি দেওয়া যায় না। স্পষ্টতই ইহা সীমালঙ্ঘন, অন্যায় ও অমানবিক।
সর্বশেষ খবর অনুযায়ী আমরা জানিতে পারিয়াছি যে এই ঘটনায় দায়েরকৃত মামলায় গ্রেফতার করা হইয়াছে সংশ্লিষ্ট শিক্ষককে।  আমরা আশা করি, আত্মহত্যায় প্ররোচনা দেওয়ার জন্য দোষী ব্যক্তিদের বিরুদ্ধে গ্রহণ করা হইবে কার্যকর ব্যবস্থা। মনোবিজ্ঞানীদের মতে,  বয়োসন্ধিকালটি অত্যন্ত স্পর্শকাতর! এই সময় তাহাদের প্রতি বাড়তি যত্ন নেওয়া দরকার। কিন্তু তাহার বদলে তাহারা যদি অনাদর ও অমর্যাদার শিকার হয়, তাহা হইলে বাধাগ্রস্ত হয় তাহাদের মানসিক বিকাশ। আর  কিশোর-কিশোরীদের প্রতি অত্যাচার ও অপমানের ফল হয় আরও মারাত্মক। সামান্য অপমান সহ্য করিতে না পারিয়া আমাদের দেশে প্রায়শ ঘটিতেছে কিশোর-কিশোরীর আত্মহত্যার ঘটনা। তাই তাহাদের ব্যাপারে প্রত্যেক পিতামাতা, শিক্ষক ও অভিভাবক  শ্রেণির সতর্ক ও যত্নবান হওয়া উচিত।
আলোচ্য ঘটনায় প্রমাণিত হয় যে, শুধু শহরাঞ্চলেই নহে, এখন গ্রামে-গঞ্জেও কোচিং ও বিভিন্ন টেস্টের নামে বাড়িয়াছে অতিরিক্ত ফি আদায়ের প্রবণতা। এই ক্ষেত্রে স্কুল-কলেজ কর্তৃপক্ষ নিয়ম লঙ্ঘন করিলেও তাহার কোনো প্রতিকার মিলিতেছে না। পাবলিক পরীক্ষার আগে অনেক শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে এই ধরনের অনিয়ম হইয়া থাকে বলিয়া খবর পাওয়া যায়। বোর্ড নির্ধারিত ফি ছাড়াও অন্যান্য ফি নেওয়ার যে বিধান আছে, তাহাতে শৃঙ্খলা প্রতিষ্ঠা করা একান্ত প্রয়োজন। কেননা এইক্ষেত্রে অনেক শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের কর্তৃপক্ষ স্বেচ্ছাচারিতার পরিচয় দিয়া থাকেন। এই স্বেচ্ছাচারিতা বন্ধ করিতে হইবে অবশ্যই। সরকারি-বেসরকারি স্কুল-কলেজগুলিতে বেতন ও বিভিন্ন ফি নির্ধারণে সুনির্দিষ্ট নীতিমালা থাকা বাঞ্ছনীয়। আর শিক্ষার্থীদের শাস্তি প্রদানের ক্ষেত্রে শিক্ষকদের উচিত সতর্কতা অবলম্বন করা। তাহাদের আরও সংবেদনশীল হইতে হইবে।


 




সাক্ষাৎকার
























সম্পাদক মণ্ডলীর সভাপতিঃ এনামুল হক শাহিন
প্রধান সম্পাদকঃ সিমা ঘোষ
সম্পাদকঃ নরেশ চন্দ্র ঘোষ

ঠিকানাঃ
২৩/৩ (৪ তালা), তোপখানা রোড, ঢাকা-১০০০
ফোনঃ ০২৯৫৬৭২৪৫, ০১৯৭৭৭৬৮৮১১
বার্তা কক্ষঃ ফাক্সঃ ০২৯৫৬৭২৪৫, ০১৬৭৬২০১০৩০
অফিসঃ ০১৭৯৮৭৫৩৭৪৪,
Email: editoropennews@gmail.com



ভারপ্রাপ্ত সম্পাদকঃ নুরে খোদা মঞ্জু
ব্যাবস্থাপনা সম্পাদকঃ গাউসুল আজম বিপু
বার্তা সম্পাদকঃ জসীম মেহেদী
আইটি সম্পাদকঃ সাইয়িদুজ্জামান